রবিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার দাবিতে ইতালী পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে স্বারক লিপি প্রদান ও মানববন্ধন করেছে ইতালী বিএনপি




মিনহাজ হোসেন ইতালী থেকে:

বিএনপির অসুস্থ চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও চিকিৎসার জন্য বিদেশে নেয়ার দাবিতে ইতালীতে পর মানববন্ধন ও স্বারক লিপি প্রদান কর্মসূচী করছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি ইতালী শাখা।

রোমে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কার্যালয়ের সামনে সেখানে রাস্তার পাশে মানববন্ধন করেন দলটির নেতা-কর্মীরা।

সকাল ৯টা থেকে শুরু হওয়া সমাবেশে নেতাকর্মীরা উপস্থিত হয়ে ‘মুক্তি মুক্তি মুক্তি চাই, খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই,’ ‘খালেদা জিয়ার কিছু হলে জ্বলবে আগুন ঘরে ঘরে’ স্লোগানে মুখরিত করে তোলেন।

সেখানে শুরুতে ইতালী বিএনপি সভাপতি হাজী আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শাহ মোঃ তৌহিদ কাদেরের পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সহ সভাপতি হাসানুজ্জামান কামরুল, হুমায়ুন কবির, এড. কামরুজ্জামান, মাসুম বিল্লাহ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম সায়মন, সাংগঠনিক সম্পাদক, কামরুজ্জামান রতন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মান্নান হিরা, এস এম এমদাদুল হক আজাদ, মানবাধিকার সম্পাদক মৃধা চুন্নু, প্রবাসী কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক স্বপন মাহমুদ, ফিরেন্স বি এন পির সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম ভূইয়া সাগর, জেনেভা বি এন পি সভাপতি কালাম ফরাজী , সাধারণ সম্পাদক নাজমুল বেপারী, যুবদল ইতালী শাখার সভাপতি জাকির হোসেন গণি, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, প্রচার সম্পাদক মাসুম বিল্লাহ, শ্রমিক দলের সভাপতি নুরুল আবছার,
সহ সমবায় বিষয়ক সম্পাদক রহিম উল্লাহ, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক সিরাজ উল্লাস পঞ্চায়েত, সহ তথ্য গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক রফিক উল্লাহ সহ বিএনপির অঙ্গ সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা।

এসময় নেতারা বলেন, ”বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া অত্যন্ত গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় এভারকেয়ার হাসপাতালে আজকে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে তিনি লড়াই করছেন। কিন্তু এই সরকার এখন পর্যন্ত তাকে সেই (বিদেশে) চিকিৎসার সুযোগ প্রদান করছে না। আজকে এই স্মারীলিপি প্রদান ও মানববন্ধন কর্মসূচি হচ্ছে আমাদের নেত্রীকে বিদেশে চিকিৎসার ব্যবস্থা নিতে ইতালী বিএনপির পক্ষ থেকে যে আবেদন করা হয়েছে, তা বাস্তবায়নের দাবিতে।”

এছাড়াও নেতৃবৃন্দরা আরো বলেন আমরা গণতন্ত্রের বিশ্বাস করি, যদি খালেদা জিয়ার মুক্তি ও চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানো না হয়, আমরা শান্তিপূর্ণভাবে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আন্দোলন করে আমাদের দেশনেত্রীকে মুক্ত করব।

উল্লেখ্যঃ খালেদা জিয়া বর্তমানে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ৭৬ বছর বয়সী খালেদা জিয়া আর্থরাইটিস, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, কিডনি এবং ফুসফুসের সমস্যাসহ নানা জটিলতা ভুগছেন দীর্ঘদিন ধরে।

এখন উচ্চ রক্তচাপ এবং ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে না থাকায় এবং জ্বরের কারণে তাকে হাসপাতালে সিসিইিউতে রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: