মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গ্রিস সীমান্তে আবারো ১৪৪ বাংলাদেশী অভিবাসী আটক




গ্রিস প্রতিনিধি:

গ্রিস সীমান্তে আবারও বাংলাদেশী অভিবাসীদের একটি বড় দলকে আটক করেছে পুলিশ। নর্থ মেসিডোনিয়ায় একটি ট্রাকে ১৪৪ জন বাংলাদেশিসহ ২১১ জন অভিবাসীর সন্ধান পেয়েছে দেশটির পুলিশ। মঙ্গলবার (৭ জুলাই) নর্থ মেসিডোনিয়া পুলিশের পক্ষ থেকে এমনটা জানানো হয়।

মঙ্গলবার পুলিশ জানিয়েছে, একটি আঞ্চলিক সড়কে রুটিন চেকের সময় একটি ট্রাকে এই অভিবাসীদের পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে ১৪৪ জন বাংলাদেশি ও ৬৭ জন পাকিস্তানি রয়েছেন। মার্কিন বার্তা সংস্থা এসোসিয়েটেড প্রেস (এপি) এখবর জানিয়েছে।
পুলিশ জানায়, দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় গ্রিস সীমান্তের গাভগেলিজা শহরের কাছে সোমবার মধ্যরাতে এই রুটিন চেক পরিচালনা করা হয়। এসময় ট্রাকটি থামানো হলে ভেতরে গাদাগাদি অবস্থায় এই অভিবাসীদের পাওয়া যায়।

পুলিশ আরও জানায়, ট্রাকের চালক ২৭ বছরের মেসিডোনিয়ার নাগরিক। তাকে ই.পি আদ্যক্ষর হিসেবে উল্লেখ করে গ্রেফতার করার জানানো হয়েছে।
অভিবাসীদের আটক করা হয়েছে এবং তাদের গ্রিসে ফেরত পাঠানোর জন্য গাভগেলিজা শহরের একটি ট্রানজিট শেলটার কেন্দ্রে রাখা হয়েছে। এর আগে ২২ জুন নর্থ মেসিডোনিয়ায় একটি ট্রাকে ৬৪ জন বাংলাদেশি অভিবাসীকে পাওয়ার পর আটক করে দেশটির পুলিশ।
গ্রিস ও নর্থ মেসিডোনিয়ার সীমান্তও করোনাভাইরাস মহামারির জন্য এই বছরের শুরুতে বন্ধ করা হয়। তবে পুলিশ বলছে, সীমান্ত এলাকায় মানবপাচার অব্যাহত রয়েছে।
যুগোসøাভিয়ার ভেতর দিয়ে তথাকথিত বলকান অভিবাসন রুটটি ২০১৫ সাল থেকেই বন্ধ। প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে গ্রিসের সঙ্গে নর্থ মেসিডোনিয়া সীমান্ত এই বছরের শুরুর দিকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: