শনিবার, ২ জুলাই ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

যে শহরে বসবাসের জন্য দেয়া হবে পৌণে ২ লাখ টাকা!




করোনা সংকটে বিপর্যস্ত বিশ্বের প্রায় সব দেশের অর্থনীতি। লকডাউনের কারণে ব্যবসা বন্ধ হয়ে যাওয়ার ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে বিভিন্ন উদ্যোগ নিচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন শহর। আমেরিকার চ্যাথাম কাউন্টির স্যাভানা শহর যেমন থমকে যাওয়া অর্থনীতির উন্নতির জন্য কর্মীদের দিচ্ছে আকর্ষণীয় প্যাকেজ।

অন্য রাজ্য থেকে স্যাভানায় যেয়ে কোন ব্যক্তি বসবাস করলে ও সেখানকার কোন প্রতিষ্ঠানে কাজ নিলে তাকে ২ হাজার ডলার (বাংলাদেশী মুদ্রায় প্রায় ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা) দেবে সেখানকার ইকোনমিক ডেভলপমেন্ট অথরিটি (এসইডিএ)। স্যাভানা শহর কর্তৃপক্ষের এই প্রতিষ্ঠান বিনিয়োগ বাড়াতে ও চাকরীর সুযোগ তৈরিতে কাজ করে করে। শহরটির ব্যবসা বাড়াতে সমর্থন দেয়ার জন্য রাজ্যের বাইরের প্রযুক্তি কর্মীদের প্রলুব্ধ করতেই এই উদ্দীপনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছে তারা।

আমেরিকার দক্ষিণ-পূর্ব উপকূলের কাছে অবস্থিত এই শহরে রয়েছে প্রাচীন স্থাপত্যের নিদর্শন। শুধু তাই নয়, মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশও এখানকার অন্যতম আকর্ষণ। করোনার প্রভাবে যখন আমেরিকার বিভিন্ন শহরে টালমাটাল অবস্থা, তখন এই শহর সংক্রমণ হার অনেকটাই কম। তাই শহরের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডকে নতুন গতি দিতে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সেখানকার স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

ইতিমধ্যে স্বাস্থ্য পরিষেবা, এরোস্পেস, অত্যাধুনিক ম্যানুফ্যাকচারিং ছাড়াও তথ্যপ্রযুক্তির প্রচুর প্রতিষ্ঠান অফিস খুলেছে স্যাভানাতে। প্রায় ৫০০টি সংস্থার অফিস রয়েছে সেখানে। এ বিষয়ে এসইডিএ’র ভাইস প্রেসিডেন্ট জেন বনেট বলেছেন, ‘থাকার জন্য স্যাভানা অন্যতম সেরা জায়গা। ঐতিহাসিক এই শহরে সৌন্দর্যের পাশাপাশি শিল্পের উন্নতি ঘটাতেই এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।’ সূত্র: ফোর্বস।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: