বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গৌরনদীতে বাসচাপায় নিহত ৩




স্টাফ রিপোর্টার,
8296
বরিশালের গৌরনদীর দক্ষিণ বিজয়পুর এলাকায় বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের গৌরনদী বাসস্ট্যান্ডের দক্ষিণ পাশে একটি যাত্রীবাহী বাসের চাপায় এক পুলিশ সদস্যসহ তিনজন নিহত হয়েছে।
নিহতরা হলেন, গৌরনদী হাইওয়ে পুলিশের সদস্য জাহিদ হোসেন মৃধা (২৯), গৌরনদী বাসস্ট্যান্ড কাঁচাবাজারের ব্যবসায়ী সিরাজ সরদার (৬০) ও গৌরনদী উপজেলা জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা শাহজাদা শরীফ (৪৪)। এদের মধ্যে নিহত গৌরনদী হাইওয়ে থানা পুলিশের কনস্টেবল জাহিদ হোসেন মৃধার বাড়ি পটুয়াখালী জেলার বাউফল উপজেলার বীরপাশা গ্রামে। সে ওই গ্রামের মাস্টার আবদুল লতিফ মৃধার ছেলে। গৌরনদী বাসস্ট্যান্ড কাঁচাবাজারের মুদি ও মনোহরী ব্যবসায়ী সিরাজ সরদারের বাড়ি গৌরনদী উপজেলার বিল্বগ্রাম গ্রামে। সে ওই গ্রামের মৃত আছমত আলী সরদারের ছেলে। গৌরনদী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক শাহজাদা শরীফের বাড়ি দুর্ঘটনাস্থল থেকে মাত্র ৫০০ গজ দক্ষিণে উপজেলার দক্ষিণ বিজয়পুর গ্রামে। সে ওই গ্রামের মৃত আবু আল শরীফ (কালু শরীফ)-এর ছেলে। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন দুজন। তারা হলেন স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা শাহজাদা শরীফের ছেলে মাদরাসার ছাত্র রেশাদ (১১) ও রিকশাচালক নজরুল ইসলাম (৩৫) তবে বিদ্যুতের খুঁটির ওপর আছড়ে পড়া বাসটির সামনের অংশ দুমড়ে মুচলে গেলেও বাসটির কোন যাত্রী বা স্টাফ হতাহত হয়নি।
প্রত্যক্ষদর্শী জানা গেছে, বরিশাল থেকে বেনাপোলগামী কেএম পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস গতকাল সকাল সোয় ৭টার দিকে ৩৫-৩৬ জন যাত্রী নিয়ে বরিশালের নথুল্লাবাদ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল থেকে ছেড়ে আসে। সকাল ৮টার দিকে ওই বাসটি বেপরোয়া গতিতে বরিশালের গৌরনদী বাসস্ট্যান্ডের দক্ষিণ পাশে দক্ষিণ বিজয়পুর এলাকায় পৌঁছালে পুলিশ চেক পোস্টে ডিউটিরত পুলিশ কনস্টবল জাহিদ মহাসড়কের ওপর দাঁড়িয়ে বাসটিকে থামতে ইশারা করে। বাসটির চালক তখন নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কনস্টেবল জাহিদ হোসেনকে ধাক্কা মেরে সামনে থাকা একটি ব্যাটারিচালিত রিকশাকে চাপা দিয়ে মহাসড়কের পাশের একটি বিদ্যুতের খুঁটির ওপর আছড়ে পড়ে। এতে রিকশার আরোহী ব্যবসায়ী সিরাজ সরদার রিকশা থেকে ছিটকে মহাসড়কের পাশে পড়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন। রিকশার অপর আরোহী স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা শাহজাজা শরীফ রিকশা থেকে ছিটকে মহাসড়কের পাশের একটি ডোবার পানিতে পড়ে ডুবে যান। দুর্ঘটনাকালে রিকশার ভেতরে স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা শাহজাদা শরীফের কোলে বসে মাদরাসায় যাচ্ছিল তার পুত্র মাদরাসা ছাত্র রেশাদ (১১)। সেও গুরুতর আহত হলে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে গৌরনদী হাসপাতালে নেয়া হয় তখন স্বজনরা দুর্ঘটনাস্থলে ছুটে এসে ডোবায় তল্লাশি চালিয়ে স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা শাহাজাদার লাশ উদ্ধার করে। আহত পুলিশ কনস্টেবল জাহিদ হোসেন মৃথা (২৯) ও রিকশাচালক নজরুল ইসলাম (৩৫) ও স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা শাহজাদা শরীফের ছেলে রেশাদ (১১)কে মুমূর্ষু অবস্থায় বরিশাল শেরেবাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কনস্টবল জাহিদ মারা যান।

গৌরনদী হাইওয়ে থানার ওসি মো. মাহবুবুর রহমান চৌধুরী জানান, পুলিশ ঘাতক বাসটিকে আটক করেছে। তবে বাসটির চালক ও হেলপার পলাতক রয়েছেন। নিহতদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: