মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভারতে লকডাউনের মধ্যেই মাস্ক পরে বিয়েতে বর-কনে!




বিশ্বজুড়ে ভয়াবহ আকারে ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। ভারতেও এ মহামারীর বিস্তার ঠেকাতে চলছে লকডাউন।

বৃহস্পতিবার খড়গপুরের ওই বিয়ের ঘটনা ঘিরে এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। যদিও মুখে মাস্ক পরেই সামাজিক আচার মেনে বিয়ে সেরেছেন পাত্র-পাত্রী।

উপস্থিত অভ্যাগতরাও পরে ছিলেন মাস্ক। মুখে মাস্ক পরেই বিয়ে সম্পন্ন করেন পুরোহিত। এলাহি ভোজের ব্যবস্থা ছিল না। তবে দুঃস্থদের খাওয়াতে ৩১ হাজার টাকা অনুদান দিয়েছেন ওই নবদম্পতি।

খড়গপুরের এক ফাস্ট ফুড দোকানের মালিক সৌরভ। লকডাউনের জেরে এখন বন্ধ সেই ব্যবসা। দু’জনের বিয়ে স্থির হয়েছিল ১৩ মার্চ।

কিন্তু পাত্রের মা অসুস্থ হয়ে পড়ায় পিছাতে হয়েছিল সেই অনুষ্ঠান। এরপর থেকে সৌরভের বাড়ির কাছেই এক আত্মীয়য়ের বাড়িতেই থাকতে শুরু করেন স্বাতী।

সময়-অসময়ে গিয়ে খোঁজ নিয়ে আসতেন হবু-শাশুড়ির। এভাবেই দু’পক্ষের সহমতে আর পাত্র-পাত্রীর মায়ের আশীর্বাদ নিয়ে ঘরোয়া আয়োজনে ১৬ এপ্রিল সম্পন্ন করা হয় পরিণয়।

তবে, পাশের জেলায় অবস্থান করায় মেয়ের এই সুদিন নিজের চোখে দেখতে পারলেন না স্বাতীর মা। লকডাউনের জেরে পরিবহণ না চলায় তিনি উপস্থিত হতে পারেননি খড়গপুরের বিয়ে বাড়িতে। তাই স্বাতীর এক কাকিমাই সব দায়িত্ব পালন করেছেন।

পাত্র সৌরভ কর্মকারের দাবি, অতিথি আপ্যায়ন বাবদ বেঁচে যাওয়া ৩১ হাজার টাকা স্থানীয় ক্লাবকে দান করা হয়েছে। তিনি সেই ক্লাবের সদস্য।

ক্লাব সদস্যদের বলা হয়েছে সেই টাকায় আগামী দু’দিনে ৫০০ জনের খাবারের ব্যবস্থা করতে। লকডাউন শুরু হওয়ার পর থেকে সেই ক্লাবই এলাকার দুঃস্থদের খাওয়াতে উদ্যোগ নিয়েছে।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: