মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ঈদের দিনে দুই নারী ফুটবলারের নৌকা বিলাস




ব্যতিক্রমী ঈদ, ঘরবন্দী ঈদ। করোনাভাইরাসের কারণে এবার ঈদ মনে হয়নি ঈদের মতো। অন্যদিনগুলোর সঙ্গে এবারের ঈদের দিনটাকে আলাদা করার উপায় ছিল না। তারপরও ঈদের নামাজে অংশ নিয়েছেন অনেকেই। ঈদের বিকেলে ঘুরতেও বের হয়েছিলেন কিছু মানুষ।

জাতীয় নারী ফুটবল দলের দুই সদস্য স্ট্রাইকার তহুরা খাতুন ও অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার জুনিয়র শামসুন্নাহারও পরের দলের অংশীদার। তারা দু’জন ঈদের আনন্দ করেছেন নৌকায় ঘুরে। ময়মনসিংহের ধোবাউড়ার মুক্তাগাছা গ্রামে বাড়ি এই দুই নারী ফুটবলারের। দু’জনের বাড়ির দুরত্ব ৫ মিনিটের পথ- মাঝে মাত্র চারটি বাড়ি। পাশেই বিশাল বিল।

ঈদের দুপুরে শামসুন্নার চলে এলেন তহুরাদের বাড়িতে। এরপর টানা দুই ঘণ্টা নৌকায় নিয়ে ঘোরাঘুরি। নৌকা চালাতে পারেন দু’জনই। তবে তহুরা একটু বেশিই পটু। দুই ঘণ্টার নৌকা বিলাসে জাতীয় দলের এই স্টাইকারই বেশি চইর (যে বাঁশটা দিয়ে নৌকা চালায়) ঠেলেছেন।

ফুটবল মাঠে প্রতিপক্ষের ডিফেন্স তছনছ করে কেবল গোলই দিতে পারেন না তহুরা, বিলের গভীর পানিতে দক্ষতার সঙ্গে নৌকাও চালাতে পারেন। তাইতো নৌকা নিয়ে ঘুরতে ঘুরতে নিজ গ্রাম থেকে অনেক দুর চলে গিয়েছিলেন এই দুই নারী ফুটবলার। বিলের অন্য প্রান্তে রায়পুর নামের আরেকটি গ্রামের কাছ দিয়ে ঘুরে এসে বাড়িতে ফিরেছেন তারা।

‘এবারের ঈদে তো কোথাও যাওয়ার উপায় ছিল না। তাই ভাবলাম নৌকা নিয়ে ঘুরে আসি। শামসুন্নাহারকে সঙ্গে করে আমাদের নৌকাটা নিয়ে বেরিয়ে পড়লাম। কিছু সময় ও (শামসুন্নাহার) চালিয়েছে, কিছু সময় আমি। তবে বেশি সময় আমিই নৌকা বেয়েছি (চালিয়েছি)’- বলছিলেন বাংলাদেশের নারী ফুটবলে মেসিখ্যাত তহুরা খাতুন।

তহুরা খাতুন এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের চূড়ান্ত পর্বে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুর্দান্ত দুই গোল করে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন সবাইকে।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: