মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

প্যারিসে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা ও শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী পালন




 

ডেস্ক রিপোর্ট :

বাংলাদেশ দূতাবাস প্যারিসের উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব-এর ৯২তম এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল-এর ৭৩তমজন্মবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রবাসী বাংলাদেশী, সামাজিক ও রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠানের নেতাকর্মীবৃন্দ, সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক  ব্যক্তিবর্গ ও দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ অংশগ্রহণ করে

এদিন সকালে রাষ্ট্রদূত খন্দকার এম তালহা দূতাবাসেরকর্মকর্তাবৃন্দ এবং উপস্থিত রাজনৈতিকসাংস্কৃতিক নেতৃবৃন্দজাতি পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিণীবঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব এবং তাঁদের জেষ্ঠ্যপুত্রবীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালএর প্রতিকৃতিতেপুষ্পস্তবক র্পনের মাধ্যমে শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করেন এসময় দেশ ও জাতির সার্বিক উন্নতি ও মঙ্গল কামনা করে বিশেষ দোয়া মোনাজাত করা হয় এবং জাতির পিতাতাঁরপরিবারের সদস্যবৃন্দসহ ১৫ই আগস্টের সকল শহীদদেরআত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়

পরবর্তিতে এ দিবস উপলক্ষ্যে মহামান্য রাষ্ট্রপতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রদত্তবাণীসমূহ পাঠ করা হয়এরপর উপস্থিত আমন্ত্রিত অতিথিগণ আলোচনা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামতৎপরবর্তি স্বাধীনবাংলাদেশ বিনির্মাণে তাঁদের অসামান্য ভূমিকার প্রতি আলোকপাত করেন।    

রাষ্ট্রদূত তালহা তাঁর বক্তব্যের শুরুতে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠবাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এবং বাংলাদেশের মুক্তিসংগ্রামে তার অসামান্যকালজয়ী নেতৃত্বের কথা পরম শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। তিনি বলেন, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব বঙ্গবন্ধুর জীবনরাজনীতির ছায়াসঙ্গীছিলেন এবং একাধারে অন্তরালে থেকে বঙ্গবন্ধু দীর্ঘরাজনৈতিক জীবনের বিভিন্ন ক্রান্তিকালে পরামর্শসাহসযুগিয়েছেন আবার সংসারের হাল ধরে পাঁচটি সন্তানকেসুশিক্ষিতআদর্শবান মানুষ হিসেবে গড়ে তুলেছেন তিনিআরও বলেন, জাতির পিতার জেষ্ঠ্যপুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল ছিলেন প্রাণচাঞ্চল্যে ভরপুর একজনতরুণ সাংস্কৃতিকক্রীড়া সংগঠক এসম রাষ্ট্রদূত এইউভয়ক্ষেত্রে তাঁর অসামান্য অবদানের কথা স্মরণ করেন

রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, একটি স্বাধীন দেশেরঅবিসংবাদিত রাষ্ট্রপতির সহধর্মিনীজেষ্ঠপুত্র হিসেবে তারাসকল আয়েশী জীবনের হাতছানিকে উপেক্ষা করে যুদ্ধবিদ্ধস্তএকটি সমাজকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য নিরলস কাজকরেছেনতিনি আরও বলেন, বঙ্গমাতার জীবনচিত্র সকলনারীর জন্য যেমন অনুকরণীয় তেমন শহীদ শেখ কামাল-এরজীবনী থেকেদেশের যুবসমাজের উত্তরণআত্ম-উন্নয়নেররুপরেখা খুজে পাওয়া যায়এসময় তিনি রূপকল্প-২০৪১ বাস্তবায়নে সকল প্রবাসী বাংলাদেশীদের শহীদ পরিবারেআত্মত্যাগদেশপ্রেমের চেতনার আলোকে একযোগে কাজকরার জন্য আহবান জানান

আলোচনাপর্বে উপস্থিত রাজনৈতিকসামাজিকনেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন এবং তাঁরা বর্তমান প্রজন্মকেবঙ্গমাতাশহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের জীবন থেকে শিক্ষানেবার জন্য সকলকে অণুপ্রাণিত করেন

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: