বুধবার, ২৯ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

করোনা আক্রান্তে বিশ্বের চতুর্থ ভারত




A civic worker fumigates a slum area as a preventive measure against malaria and dengue ahead of monsoon in Mumbai on June 12, 2020. (Photo by Punit PARANJPE / AFP)

ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় প্রথমবারের মতো প্রায় ১১ হাজার লোক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে সেখানে নতুন ভাইরাসটিতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল দুই লাখ ৯৭ হাজার ৫৩৫ জনে।

এভাবে আক্রান্তের সংখ্যায় যুক্তরাজ্যকে ছাড়িয়ে গেলে দক্ষিণ এশিয়ার দেশটি।

বৈশ্বিক মহামারীতে সংক্রমণের দিক থেকে বিশ্বের চতুর্থ স্থানে চলে এসেছে ভারত। যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল ও রাশিয়ার পরেই ভারতের অবস্থান।

এনডিটিভি খবর বলছে, ভারতে গত একদিনে ১০ হাজার ৯৫৬ জনের শরীরে ভাইরাসটি সংক্রমিত হয়েছে।

ভারতে মৃত্যুর সংখ্যাও বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে ৩৯৬ জন করোনায় মৃত্যুবরণ করেছেন। দেশটিতে এখন বৈশ্বিক মহামারীতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে আট হাজার ৪৯৮ জনে পৌঁছেছে।

তালিকার তৃতীয় স্থানে থাকা রাশিয়াতে জ্ঞাত কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা ৫ লাখ এক হাজার ৮০০ জনে দাঁড়িয়েছে।

মে মাসের ২৪ তারিখ ভারত আক্রান্তের সংখ্যায় বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে দশম স্থানে ছিল। পরের ১৮ দিনেই দেশটি চতুর্থ স্থানে উঠে এলো।

জানুয়ারির ৩০ তারিখ কেরালায় প্রথম রোগী শনাক্ত হলেও সংক্রমণ প্রতিরোধে ভারত মার্চের শেষ সপ্তাহেই দেশজুড়ে লকডাউন দিয়েছিল।

সেসময় দেশটিতে নতুন করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৫০০র সামান্য বেশি; মৃত্যু হয়েছিল ১০ জনের।

আর সর্বশেষ সাতদিনে দেশটিতে প্রতিদিন ৯ হাজারের বেশি আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে।

ভারতে কোভিড-১৯ এ মোট মৃত্যুর প্রায় অর্ধেকই হয়েছে মহারাষ্ট্রে; পশ্চিমাঞ্চলীয় এ রাজ্যটিতে আক্রান্তের সংখ্যাও এক লাখের কাছাকাছি পৌঁছে গেছে।

এদিকে নয়াদিল্লির প্রধান জামে মসজিদ মুসল্লিদের নামাজ আদায়ে অল্প কয়েক দিনের জন্য খুলে দিলেও সেটি আবার বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

মসজিদটির ব্যবস্থাপনা কমিটি বলছে, ভাইরাস বিস্তারের আশঙ্কা থেকেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

ধর্মীয় সমাবেশে জমায়েত হওয়ার বিধিনিষেধ শিথিল করার পর গত সোমবার জামা মসজিদটি খুলে দেয়া হয়েছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবার আবার সেটি বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: