মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

Sex Cams

মুক্তির দ্বারপ্রান্তে যুক্তরাষ্ট্র!




এমদাদ চৌধুরী দীপু, নিউইয়র্কঃ

মার্কিন যুক্তরাস্ট্রে এখন ১০ এর গল্প। যেমন ১০দিন বাকী শীর্ষ আক্রান্ত অঙ্গরাজ্যের লক ডাউন খোলার। ১০লাখ অতিক্রম করেছে নিউইয়র্কে কোভিড-১৯ পজেটিভ টেস্ট। সুস্থতা এবং মৃত্যুর সংখ্যা বাদ দিলে ১০ লাখের নীচে আছে যুক্তরাস্ট্রে করোনা শনাক্তের সংষ্যা। শনাক্ত বিবেচনায় শীর্ষ ১০টি রাজ্যে কমছে মৃত্যুর মিছিল। নিউইয়র্ক এর গভর্নর এবং ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নরের নেতৃত্বে রয়েছে ১০টি রাজ্য,এই ১০ রাজ্য সমন্বিতভাবে সিদ্বান্ত নেবে লকডাউন উঠে যাবে নাকি বৃদ্বি করা হবে আবারো।
মাত্র ১০দিন বাকী। ৬৪ দিন ধরে গৃহবন্ধী জীবনে রয়েছেন উত্তর-আমেরিকাবাসীর একটি বড় অংশ।যুক্তরাস্ট্রজুড়ে যখন ক্ষণ গননা চলছে আবারো খোলে যাওয়ার। তখন করোনা চিত্র এমন, ১২লাখ ১১ হাজারের উপরে করোনা রোগী শনাক্ত সম্পন্ন হয়েছে। এটি পুরো বিশ্বে শনাক্ত হওয়াদের এক তৃতীয়াংশ।মোট মৃত্যু ৬৯হাজার ৬১১জন এর উপরে। দিনে ২৩ হাজার পজেটিভ শনাক্ত হচ্ছে। এটি উন্নতির পথে আরো একধাপ এগিয়ে যাওয়ার বার্তা। মৃত্যু নেমে এসেছে একদিনে ১০১৪জনে। এই সংখ্যাটিও মুক্তির বার্তা দিচ্ছে যুক্তরাস্ট্রবাসীকে। এই সংখ্যা আগের চেয়ে অর্ধেক। একদিনে সুস্থ হয়েছেন ৯ হাজার। একলাখ ৮৭ হাজার মানুষ পুরো যুক্তরাস্ট্রে করোনা থেকে এ যাবত রেহাই পেয়েছেন। এসব পরিসংখ্যান বৈশ্বিক তথ্যবাতায়ন ওয়াল্ডো মেটারের।
এই সপ্তাহজুড়ে তাপমাত্রা থাকবে গড়ে ৬০ডিগ্রী ফারেনহাইডস এর উপরে। লকডাউন তুলে দেয়ার ১০দিন আগে মোট কোভিড-১৯ টেস্টিং পৌছে গেছে ৭৪লাখ ৫৮হাজারে। এন্টিবডি টেস্ট বৃদ্বি করা হচ্ছে,টেস্ট করা হচ্ছে বাড়ি বাড়ি গিয়ে।
নিউইয়র্ক এর গভর্নর তার রাজ্যে দ্রæত এবং ব্যাপকভাবে করোনা বিস্তারের জন্য চীন এবং ইউরোপের ফøাইট বিনা পরীক্ষায় জেএফকে এয়ারপোর্ট,নিউয়ার্ক এয়ারপোর্টসহ ৩টি এয়ারপোর্ট ব্যবহার করে যাত্রী প্রবেশের বিষয়কে দায়ী করেছেন। ফেব্রæয়ারীর শেষে এবং মার্চের শুরুতে এসব যাত্রী হাজার হাজার ফ্লাইটে যুক্তরাস্ট্রে প্রবেশ করেছেন। এদিকে নিউইয়র্ক মেয়র ডি বøাজিও ১৫ মে নগর এলাকায় নাকী পুরো রাজ্যে লক ডাউন তুলা হবে সে ব্যাপারে শীঘ্রই সিদ্বান্ত হবে বলে জানিয়েছেন। এদিকে নিউইয়র্ক এর মেয়র বøাজিও নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংএ বলেছেন লক ডাউন তুলে দিয়ে আবার লক ডাউন যাতে করতে না হয় সে বিষয় বিবেচনা করা হচেছ ১ মে কে সামনে রেখে।
ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর ঘোষনা করেছেন আগামী শুকবার লকডাউন শিথীল করা হবে খোলে দেয়া হবে কিছু খুচরা দোকান পাট,তবে কঠোর আইনী ব্যবস্থা এবং সাবধানতা অবলম্বন করা হবে বলে জানান তিনি। রাজ্যে রাজ্যে রোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার খবরে স্বস্থিবিরাজ করছে সবখানে। অঙ্গরাজ্য ইলিনইসে একদিনে সর্বনি¤œ মৃত্যু রেকর্ড ৪৪জনের। এই রাজ্যে একমাস ধরে গড়ে ৭০ জনের মৃত্যু হতো। শুধু ইলিনইস নয় শীর্ষ আক্রান্ত রাজ্যে নতুন শনাক্ত সংখ্যা এবং মৃত্যু হার কমেছে বিস্ময়করভাবে। অন্তত ৮টি রাজ্যে কোন মৃত্যু খবর নেই।
নিউইয়র্কে শনাক্ত এখন ৩লাখ ২৩ হাজারের উপরে,মৃত্যু ২৪ হাজার,৯শ ৪৪জন। ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ২৯৬জন। নতুন করে শনাক্ত ৩৪৯১জন। উন্নতির ধারায় রয়েছে নিউইয়র্ক।
নিউইয়র্কে লকডাউনের মেয়াদ ১৫ মে পর্যন্ত। ইতিমধ্যে কিছু প্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি শুরু করেছে। রাস্তায় এবং পার্কে উঞ্চ্আবহাওয়ার কারনে মানুষের ক্রমবৃদ্বি লক্ষ্যকরা যাচ্ছে। রাজ্য গভর্নও কোমো বলেছেন লকডাউন তুলে নেয়ার পরিকল্পনা নেয়া হচ্ছে। এই পরিকল্পনায় অঞ্চল ভিত্তিক পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে।

শীর্ষ রাজ্যগুলোর চিত্র হচ্ছে,নিউজার্সীতে শনাক্ত এক লাখ ২৯ হাজার এর উপরে ,মৃত্যু ৭৯৫১জন। মেসাচুসেট অঙ্গরাজ্য যেখানে শনাক্ত রোগী প্রায় ৬৯হাজার,মারা গেছেন ৪০৯০জন । মিশিগানে মারা গেছেন ৪০৪০জন,এ যাবত শনাক্ত ৪৪ হাজারের উপরে, এই অঙ্রাজ্যেও কোন আপডেট পাওয়া যায়নি। ইলিনইসরাজ্যে শনাক্ত ৬৪হাজারের উপরে,মৃত্যু ২৬৬২জন। ক্যালিফোনর্য়িা রাজ্যে শনাক্ত ৫৬ হাজার,মৃত্যু ২২৭৫জন,পেনসেলভেনিয়া রাজ্যে শনাক্ত ৫৩ হাজার,মৃত্যু ২৮৫০জন। ফ্লোরিডায় শনাক্ত প্রায় ৩৭ হাজার,মৃত্যু ১৩৯৯জন,টেক্সাসে শনাক্ত প্রায় ৩৩ হাজার,মৃত্যু ৯০৮জন,ক্যানেকটিকায় শনাক্ত হয়েছেন ৩০ হাজার জন,মৃত্যু ২৫৫৬জন। লুসিয়ানায় শনাক্ত হয়েছেন প্রায় ৩০ হাজার,মারা গেছেন ২০৬৪জন,জর্জিয়ায় শনাক্ত রোগী ২৯ হাজার ,মারা গেছেন ১২৪৩জন,ম্যোরিল্যান্ড অঙ্গরাজ্যে শনাক্ত ২৬ হাজার,মৃত্যু ১৩১৭জন।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: