শনিবার, ২ জুলাই ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিদেশ থেকে এলেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে




করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় দফার প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় বিদেশ থাকা আসা ব্যক্তিদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সরকার। বিষয়টি উড়োজাহাজ সংস্থাগুলোকে শনিবার জানানো হয়েছে।

ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ, ইজিজেট ও অন্যান্য ব্রিটিশ উড়োজাহাজ সংস্থাগুলোর প্রতিনিধি এয়ারলাইন্স ইউকে জানিয়েছে, এই পদক্ষেপের একটি ‘নির্ভরযোগ্য নির্গমন পরিকল্পনা’ প্রয়োজন এবং প্রতি সপ্তাহে এটি পর্যালোচনা করা উচিৎ।

বিমানবন্দরের অপারেটররা জানিয়েছে, সরকারের এই পদক্ষেপে এভিয়েশন শিল্প ও বিস্তৃত অর্থনীতিতে ‘বিপর্যয়কর’ প্রভাব পড়তে পারে।

সরকারের এই কোয়ারেন্টাইনের পরিকল্পনার বিষয়টি প্রথম প্রকাশ করে দ্য টাইমস। পত্রিকাটি জানায়, বিমানবন্দর ও নৌবন্দর দিয়ে আসা ব্রিটেনের নাগরিকসহ বিদেশিদের ১৪ দিন আইসোলেশনে থাকার বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন রোববার ঘোষণা দিতে যাচ্ছেন। জুনের প্রথ সপ্তাহ থেকে এটি কার্যকর করা হবে। বিদেশ থেকে আসার পর যাত্রীরা যেখানে আইসোলেশনে থাকবেন সেই ঠিকানা তাদেরকে সরবরাহ করতে হবে।

সরকারি সূত্র বলেছে, ‘এই পদক্ষেপ ব্রিটিশ জনগণকে সুরক্ষায় সহায়তা করবে এবং ভাইরাস মোকাবিলায় আমাদের পরবর্তী পদক্ষেপে সংক্রমণ হ্রাস করবে।’

এ ব্যাপারে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বা প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর কোনো মন্তব্য করেনি।

করোনার প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় ছয় সপ্তাহ ধরে লকডাউন চলছে ব্রিটেনে। পরিস্থিতি সামাল দিতে সরকারের পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে রোববার জনসনের ভাষণ দেওয়ার কথা রয়েছে।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: