শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভ্যাকসিন সব দেশেই একসাথে দেবে ফ্রান্সের কোম্পানী সানোফি




করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন একসাথে বিশ্বব্যাপী পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছে সানোফি। সংস্থাটির চেয়ারম্যান সার্জ ওয়েইনবার্গ বৃহস্পতিবার বলেছেন, সানোফি নিশ্চিত করবে যে কোভিড-১৯ এর সম্ভাব্য ভ্যাকসিন অনুমোদিত হলে এটি যাতে একই সাথে বিশ্বের সমস্ত অঞ্চলে পৌঁছে যায়।

বিশ্বের ৩২ টি দেশে ফরাসী ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থা সানোফির ৭৩ টি কারখানা রয়েছে। তারা করোনা ভ্যাকসিন তৈরিতে যুক্ত রয়েছে। তবে এখনও কোনও ভ্যাকসিন অনুমোদিত হয়নি। বুধবার সানোফির প্রধান নির্বাহী পল হাডসন জানিয়েছিলেন, গবেষণায় অর্থ বিনিয়োগ করার ঝুঁকি নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, তাই ভ্যাকসিন তৈরি হলে তারাই অগ্রাধিকার পাবে। এর পরে ঘটনায় ফ্রান্স সরকারের সমালোচনা ও ক্ষোভের মুখে পড়ে বৃহস্পতিবার নিজের মন্তব্য প্রত্যাহার করে তিনি বলেন, ‘করোনা ভ্যাকসিন বিশ্বের সব জায়গায় পৌঁছে দেয়াটা জরুরি।’

ফরাসী প্রধানমন্ত্রী এডুয়ার্ড ফিলিপ বলেছিলেন, সবার টিকার প্রাপ্যতার বিষয়টি নিয়ে কোনও আলোচনা হতে পারে না। এরপরই সানোফির চেয়ারম্যান ওয়েইনবার্গ সবার জন্য টিকার সমান প্রাপ্যতা নিশ্চিত করার ঘোষণা দিয়েছেন। ফ্রান্স ২ টেলিভিশনকে দেয়া সাক্ষাতকারে তিনি জানান, কোনও দেশকেই বিশেষভাবে অগ্রিম দেয়া হবে না। তিনি বলেন, ‘আমাদের বেশ কয়েকটি উৎপাদন ইউনিট রয়েছে। এগুলোর মধ্যে কয়েকটি যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছে। তবে সেখান থেকেও বেশি রয়েছে ইউরোপ ও ফ্রান্সে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের সিইওর মন্তব্যে প্রত্যাহার করা হয়েছে। ভ্যাকসিনগুলো সবার ভালোর জন্য বলে আমরা মনে করি।’

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ বলেছেন, ‘সাম্প্রতিক উদ্যোগ প্রমাণ করেছে যে, ভ্যাকসিন বাজার শক্তির বিষয় না।’ আগামী সপ্তাহে তিনি সানোফি কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন বলে জানিয়েছেন।

ইউরোপীয় ইউনিয়নও চায় সবদেশের জন্য ভ্যাকসিন পাওয়ার সমান সুযোগ থাকতে হবে। ইউরোপিয়ান কমিশনের মুখপাত্র স্টিফান ডি কির্সমায়েকার বলেছেন, ‘কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন বিশ্বের সবার জন্য এবং এর প্রাপ্যতা সমান ও সর্বজনীন হওয়া উচিত।’ সূত্র: রয়টার্স।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: