শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মামুন সুলতান এর কবিতা ‘তবুও নীলাঞ্জনা’




তবুও নীলাঞ্জনা

বালিকা এত কঠিন সহজে এর মন মিলে না
গুরু রবীন্দ্রনাথও তার মন পাননি কখনো
অতি যত্নে ক্যামেলিয়া ফুটেছে সাঁওতাল পরগনায়
কাজের মেয়ের চুলে আলো করে সেই ফুলের শ্রী
আমার ভাগ্যটা ঠিক রবীন্দ্রনাথের মতোন।

ধরো নীলাঞ্জনা একালের ক্যামেলিয়া
অর্থাৎ একটা মেয়ে নীল শাড়ি পরে
নীল চুড়িতে সাজিয়ে রাখে তার সোনালি হাত
কপালে ছোট্ট করিয়া একটা টিপ পরে
মেঘের দিকে তাকিয়ে থাকে বৃষ্টির প্রতীক্ষায়…

এদিকে রবিবাবুর মতো আমিও বৃষ্টির গান গাই
ভীষণ মন খারাপে সে তুমি আপনার যা হয়
আমার একটু আলাদা রকমের অনুভূতি জাগে
আমি আর রবীন্দ্রনাথ একই মুদ্রার এপিঠ ওপিঠ

রবীন্দ্রনাথ কখনো কাঁদেনি তিনি কাঁদিয়েছেন
তবে আমি কাঁদতে পারি
শ্যামল বাংলার একমাত্র ক্রন্দনশিল্পী

নিজেকে সব সময় অযোগ্য আদম ভাবি
সেই বালিকার অবহেলা আমাকে অক্ষম করেছে
প্রার্থনায় নিলাঞ্জনা নীল হয়ে ওঠে
চোখ-দুটো ডালিমের মত লাল আর বড় বড়
বালিকারা রেগে গেলে বুঝি এমন হয়?

লেবুর মত চিবিয়ে চিবিয়ে কথা বলি
কিন্তু বালিকার মনের রস কখনো রসালো হয়নি
অরসে অরুচি তবুও নীলাঞ্জনাই আমার প্রেম।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: