শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিপীলিকা ফাউন্ডেশন এর বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি




পিপীলিকা ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার উদ্যোগে জোবরা গ্রামে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

শুক্রবার (২ জুলাই)হাটহাজারী উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়ন এর বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মাঝে ঔষধি ও ফল-ফলাদি গাছ বিতরণ করা হয়।

এসময় বক্তারা পরিবেশ সংরক্ষণ ও বনায়নে সামাজিক দায়বদ্ধতার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, বৃক্ষরোপণ আমাদের অস্তিত্বের জন্যই জরুরি। বৃক্ষ গ্রীন হাউজ প্রতিক্রিয়া রোধ করে। একটি দেশের প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষার জন্য মোট ভূমির শতকরা ২৫ ভাগ বনভূমি থাকা প্রয়োজন। কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় যে, আমাদের দেশে মোট ভূমির মাত্র ১৬ ভাগ বনভূমি রয়েছে যা দেশের প্রয়োজনের তুলনায় খুবই অপ্রতুল। সামাজিক বনায়নের জন্য নতুন এলাকা বেছে নিতে হবে। যেমন নদীর ধার, পাহাড়ের ঢাল, উপকূল, রেল ও সড়কের পাশে অধিক হারে গাছ লাগাতে হবে।

ফতেপুর জিনিয়াস ক্লাবের সভাপতি রুহুল আমিন বলেন, বৃক্ষলতা না থাকলে এ জগতে মানুষের বসবাস অসম্ভব হতো। হাদিস শরিফে এসেছে, ‘যে ব্যক্তি কোনো বৃক্ষ রোপণ করল, আল্লাহ রাব্বুল আলামিন এর বিনিময়ে তাকে এই বৃক্ষের ফলের সমপরিমাণ প্রতিফল দান করবেন।’ (মুসনাদে আহমদ)। গাছের প্রতিটি পাতা আল্লাহর জিকির করে। সেই জিকিরের সওয়াব রোপণকারীর আমলনামায় লেখা হয়। তাই আমাদের বেশি করে বৃক্ষরোপণ ও বনায়ন করা উচিত। গাছ লাগাতে হবে, গাছের পরিচর্যা করতে হবে এবং অকারণে বৃক্ষনিধন বন্ধ করতে হবে।

কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আব্দুর রহমান, তারেক হোসাইন, মো শামীম প্রমুখ।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: