মঙ্গলবার, ৯ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ধর্মঘটে প্যারিস বিমানবন্দর: চরম শিডিউল বিপর্যয়




শাহ সুহেল আহমদ:

প্যারিসের প্রধান বিমানবন্দর শার্ল দ্যু গোল এয়ারপোর্টে টানা চারদিনের ধর্মঘটে চরম শিডিইল বিপর্যয়ে হয়রানীতে পড়েছেন যাত্রীরা। বেতন বৃদ্ধির দাবিতে বিমানবন্দর কর্মীরা ধর্মঘটের ডাক দেন।

বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া ধর্মঘট রোববার শেষ হলেও আগামি ৮ জুলাই থেকে ১০ জুলাই পর্যন্ত দাবি আদায়ের লক্ষে তারা আবারও ধর্মঘট করবেন বলে জানিয়েছেন। এমনটি হলে গ্রীষ্মের ছুটির প্রথমেই চরম ব্যাঘাত ঘটবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। যদিও ফ্রান্সের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ ডিজিএসি বলেছে ধর্মঘটে যাত্রীদের খুব বেশি ব্যাঘাত পেতে হচ্ছে না।

কিন্তু যাত্রীরা তাদের দুর্দশরা কথা বলছেন অকপটেই। ফিলিপাইন টুর্নিয়ার, যিনি মেক্সিকোর কানকুনে একটি ফ্লাইট বুক করেছিলেন, তিনি বলছেন- ‘ভোর ৩টা থেকে আমরা এখানে আছি এবং আমরা এখনও অপেক্ষা করছি। এটি মোটেও সুখকর নয়।’

প্যারিস বিমানবন্দর গ্রুপ এডিপি কর্মীদের চার শতাংশ বেতন বৃদ্ধির প্রস্তাব দিয়েছিল, কিন্তু আন্দোলনকারীরা সে প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন বলে রয়টার্সকে জানিয়েছেন একজন ইউনিয়ন প্রতিনিধি।

সিজিটি ইউনিয়নের প্রতিনিধি দ্যানিয়েল বার্টোনের মতে- ‘অধিকাংশ কর্মী মনে করেন অফারটি যথেষ্ট ভাল নয়।’ তিনি বলেন- ‘আমরা ৮ থেকে ১০ জুলাই পর্যন্ত নতুন ধর্মঘটের ঘোষণা দিয়েছি।’

এডিপি সরাসরি শার্ল দ্যু গোল বিমানবন্দরের গ্রাউন্ড কর্মীদের নিয়োগ করে, যাদের বেশির ভাগই এয়ারলাইন্স এবং বিপুল সংখ্যক উপ-কন্ট্রাক্টরের সাথে শ্রম চুক্তি করে।

এদিকে, এই বিমানবন্দরের উপ-কন্ট্রাক্টর কর্মীরা ১৩ থেকে ১৭ জুলাই পর্যন্ত আলাদা ধর্মঘটের পরিকল্পনা করছে।

কোভিড সংকট ভ্রমণ শিল্পকে বিপর্যস্ত করার পরে, এডিপি এবং সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নগুলি গত বছর কম মজুরি নিয়ে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করে। তবে শ্রমিকরা বলছেন, অর্থনৈতিক চিত্র পাল্টে গেছে।

ইউনিয়নগুলি বেতনের উপর প্রতি মাসে ৩শ’ ইউরো বৃদ্ধির দাবি করছে, যা জড়িত কোম্পানিগুলি প্রত্যাখ্যান করেছিল।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: