মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্যারিসে ‘বাংলাদেশে মানবাধিকার লঙ্ঘন’ বিষয়ক আন্তর্জাতিক সেমিনার




নিজস্ব প্রতিবেদক:

প্যারিসে ‘বাংলাদেশে মানবাধিকার লঙ্ঘন’ বিষয়ক আন্তর্জাতিক সেমিনার-২০২৩ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রবিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের একটি অভিজাত রেস্তোরাঁর সম্মেলন কক্ষে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল ফ্রান্স শাখার সদস্য সচিব মোহাম্মদ আলী চৌধুরী’র উদ্যোগে আয়োজিত সেমিনারের শুরুতে বাংলাদেশের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট, বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড, গুম-খুন ও নির্যাতন বিষয়ক একটি প্রমাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।
মোহাম্মদ আলী চৌধুরীর সঞ্চালনায় সেমিনারে প্রধান বক্তা ছিলেন, বিএনপি’র চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মাহিদুর রহমান চৌধুরী, বিশেষ বক্তা ছিলেন, কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-আন্তর্জাতিক বিষয় সম্পাদক কন্ঠশিল্পী বেবি নাজনীন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক সম্পাদক নাসির আহমেদ শাহীন, এফডিএইচআর-এর সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মাহবুব হোসেন, পলিটিক্যাল প্রিজনার ও মানবাধিকার কর্মী রেমি শাত, সাবেক সেনা সদস্য মীর জাহান, ফ্রান্স ২৪- নিউজের প্রতিনিধি আরিফ উল্লাহ্, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য দেলোয়ার হোসেন শাহীন।


এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ফ্রান্স বিএনপির সহ-সভাপতি এম এইচ রহিম, সিরাজুর রহমান, মাহবুব আলম রাঙা, সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক কবির হোসেন পাটোয়ারী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল ফ্রান্স শাখার আহ্বায়ক গোলাম মাহমুদ আজম, ফ্রান্স বিএনপি’র আন্তর্জাতিক সম্পাদক দিব্য রয়সহ বিএনপি অঙ্গসংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।
সভায় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে গণতন্ত্র না থাকার ফলে ক্রমাগত ভূলুণ্ঠিত হচ্ছে মানবাধিকার, বাড়ছে বিচারহীনতার সংস্কৃতি। ফলে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড, গুম-খুন ও নির্যাতন ঘটেই চলেছে।
বক্তারা বলেন, ‘মানুষের মত প্রকাশের অধিকার, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও সাংবাদিকদের সুরক্ষা আজ উপেক্ষিত। কেন্দ্র থেকে প্রান্তিক পর্যায় প্রতিনিয়ত যা ঘটে তার পুরো চিত্র কখনো জনসম্মুখে ওঠে আসে না। শেখ হাসিনা তার সরকারকে ঠিকিয়ে রাখতে রাষ্ট্রতন্ত্রকে নিয়মবহির্ভূতভাবে ব্যবহার করে যাচ্ছে। স্থানীয় প্রশাসন থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ আদালত আজ অপরাজনীতির কবলে নিমজ্জিত।’ তারা বলেন, ‘ভোটাধিকার প্রয়োগের কথাতো দূরে থাক, মানুষ তার মৌলিক অধিকারের কথাগুলো আজ বলতে সাহস পায় না। কেবল দেশে নয় দেশের বাহিরে থেকে এ কথাগুলো বলতে গেলে পরিবারের সদস্যদের প্রশাসনের লোকজন তুলে নিয়ে যায়।’
বক্তারা আরো বলেন, ‘জোরপূর্বক ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য বিদেশীদের সহযোগিতা নিয়ে দেশকে একটি তাবেদার রাষ্ট্র বানাতে চায় বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার।’ এমতাবস্থায় গণতন্ত্র ও সুশাসন প্রতিষ্ঠায় ‘টেইক ব্যাক বাংলাদেশ’ কর্মসূচি বাস্তবায়নে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানান বক্তরা।
অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন “আরাফাত রহমান কোকো স্মৃতি সংসদ”র কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক মির্জা মাজহারুল ইসলাম।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: