বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চীনের জিনজিয়াংয়ে তুষারধসে আটকা ১০০০ পর্যটক




চীনের উত্তরপশ্চিমাঞ্চলীয় জিনজিয়াং অঞ্চলে টানা তুষারপাতের পর তুষারধসে মহাসড়ক বন্ধ হয়ে যাওয়ার প্রায় এক হাজার পর্যটক কয়েকদিন ধরে একটি প্রত্যন্ত পর্যটন গ্রামে আটকা পড়ে আছেন।

মঙ্গলবার চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিভিশন জানিয়েছে, কয়েক মিটার উঁচু তুষার ও অশান্ত আবহাওয়ার কারণে পর্যটকদের সরিয়ে আনার কাজ বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

কাজাখস্তান, রাশিয়া ও মঙ্গোলিয়ার সীমান্তবর্তী মনোরম পর্যটন গন্তব্য হেমু গ্রামে পর্যটকরা আটকা পড়েছেন। যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ায় কয়েক দিন ধরে এখানেই আটকা পড়ে আছেন তারা। গ্রামটি জিনজিয়াংয়ের আলতাই প্রিফেকচারে অবস্থিত, এখানে কিছু এলাকায় টানা ১০ দিন ধরে অনবরত তুষারপাত হচ্ছে বলে খবরে বলা হয়েছে।

ভারি তুষারপাতের কারণে আলতাই পর্বতের ভেতর দিয়ে জনপ্রিয় পর্যটন গন্তব্য কানাসের দিকে যাওয়া মহাসড়কগুলোতে বহু তুষারধস হয়েছে। এতে মহাসড়কগুলোর বিশাল অংশ তুষারের নিচে চাপা পড়ে আছে।

রোববার চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যম জানিয়েছিল, কিছু পর্যটককে হেলিকপ্টারযোগে নিরাপদে সরিয়ে আনা হয়েছে। কিন্তু আবহাওয়া অনুকূলে না থাকায় এ প্রক্রিয়ায়ও বিঘ্ন ঘটছে।

সিসিটিভি জানিয়েছে, কিছু অংশে তুষারধসের কারণে সাত মিটারের মতো উঁচু হয়ে তুষার জমে আছে আর অনেক জায়গায় তুষার পরিষ্কার করার যন্ত্রের চেয়ে উঁচু হয়ে আছে তুষার।

একটি মহাসড়কের ৫০ কিলোমিটার অংশ তুষারধসে চাপা পড়ে আছে। এটি পরিষ্কার করার কাজ এক সপ্তাহ আগে শুরু হলেও এখনও শেষ করা যায়নি।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: