শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ইসলামী শিক্ষার অগ্রাধিকার




জয়নব জোনাকি

দিন দিন আমাদের দেশের শিক্ষার হার ও শিক্ষিত মানুষ বেড়েই চলেছে আলহামদুলিল্লাহ !!

কিন্তু শিক্ষার হার বাড়ার সাথে সাথে তথা কথিত
শিক্ষিতদের চরিত্র হীনতা , দুর্নীতি, বিশৃঙ্খলা
প্রতিযোগিতা দিয়ে বাড়ছে । যে যত বেশী শিক্ষিত
হচ্ছে সে তত বেশী সত্যকে , বিবেক কে বিসর্জন দিচ্ছে। নির্লজ্জতাকে সভ্যতা বলছে।

এর একটি মাত্র কারণ হল শিক্ষাঙ্গনে পাঠ্য পুস্তকে নৈতিক ও ধর্মীয় শিক্ষার বিশাল অনুপুস্থিতি । ভুল ইতিহাস ও বিকৃত চিন্তা চেতনার অনুপ্রবেশের কারনেই আজ আমাদের সমাজ চরম অবক্ষয় আর বিপর্যয়ের দ্বার প্রান্তে পৌঁছে গেছে ।

আমাদের পাঠ্য পুস্তকে আমাদের স্বদেশ,স্বাধীনতা ,
সামাজিকতা ,ধর্মীয় মূল্যবোধ কে চরম ভাবে উপেক্ষিত
করে একটি দেশের গুনগান দিয়েই প্রাইমারী শিক্ষার বিষয়গুলোকে সাজানো হয়েছে । সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ মুসলিম ও ইসলামকে খুবই নগন্য ভাবে তুলে ধরা হয়েছে । কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীদের মননে পাঠ্যবইয়ে চিত্রশিল্প প্রতিবেদনের নামে নগ্ন ছবির ছড়াছড়ি ও জৈবিক-বৈচিত্রের সমন্নয়ক করে তাদের উচ্ছৃঙ্খলতার দিকে নিয়ে যাচ্ছে। দিন দিন তারা সুশিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এর প্রভাবে দিন দিন চরম সামাজিক অবক্ষয় তৈরি হচ্ছে।

শিক্ষা মানুষকে আলোর পথ দেখায়। নিচ থেকে উপরে উঠায়। যে সিঁড়ি বেয়ে আমরা নীচ থেকে উপরে উঠবো তা যদি হয় দুর্বল, অকেজো ,ঘুনে ধরা , সন্দেহপূর্ণ, তাহলে সেই সিঁড়ি বেয়ে উপরে উঠার চেয়ে নিচে পড়ে মেরুদণ্ড ভাঙ্গার সম্ভাবনাই বেশী।

আলোকিত সমাজ গঠনের লক্ষ্যে আদর্শিক জাতি গঠনের লক্ষ্যে সন্দেহ সংশয়হীন বিশ্বাসের ভিত্তিতে পরিশুদ্ধ নির্ভুল জীবন যাপনের লক্ষ্যে সমাজের আগামী নেতৃত্ব সৃষ্টির লক্ষ্যে কত টুকু শিক্ষা অর্জন করতে পেরেছি ?
আমদের শিক্ষাঙ্গনে চলছে নৈরাজ্য আর সন্ত্রাসবাদের কালো থাবা। বাড়ছে অস্থিরতা হতাশা এসবের মূল কারণই হচ্ছে ইসলামি শিক্ষার অভাব ! আমাদের জ্ঞানের অভাব নেই অভাব হচ্ছে ইসলামী মূল্যবোধের।

আমরা জানি শিক্ষাই জাতির মেরুদণ্ড আর ইসলামী শিক্ষা ছাড়া সে মেরুদণ্ড কখনোই মজবুত হতে পারে না। ইসলামী শিক্ষা ছাড়া কোন শিক্ষাই পরিপূর্ণ নয়।

সত্যিকার অর্থে যদি আমরা সুন্দর সুশৃঙ্খল হানাহানি মুক্ত সমাজ চাই আমাদের স্বাধীনতাকে অক্ষুন্ন রাখতে চাই, মেধাবী জাতি চাই, তাহলে আমাদের উপরে উঠার সিঁড়ি শিক্ষা ব্যবস্থায় ধর্মীয় শিক্ষাকে ছোট করে দেখার মানসিকতা পরচর্চার মানসিকতা ইতিহাস বিকৃতির মানসিকতা দূর করে যে শিক্ষা আমাদেরকে ন্যায় অন্যায়ের পার্থক্য শেখায়, সত্যকে সত্য আর মিত্থ্যাকে মিত্থ্যা বলতে শেখায়, সেই শিক্ষার পরিবেশ বাস্তবায়ন করলেই আমরা আলোকিত সমাজ , আদর্শ নাগরিক গঠনের মাধ্যমে সৎ, দক্ষ, যোগ্য,দেশ প্রেমিক নাবিক খুঁজে পাবো ইনশাআল্লাহ !!
তাই আজ আমাদের লক্ষ্য কোটি প্রানের দাবীঃ আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থায় ইসলাম আগ্রাধিকার পাক। পাশ্চাত্যের জড়বাদী ধ্যান ধারনা নিপাত যাক।
.
লেখক: কবি ও প্রাবন্ধিক

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: