রবিবার, ২৬ মে ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মাতৃভাষা দিবসে প্যারিস বাংলা প্রেসক্লাবের আলোচনা সভা




নিজস্ব প্রতিবেদক:

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে প্যারিস বাংলা প্রেসক্লাব ফ্রান্সের উদ্যোগে ‘প্রবাসে বাংলা ভাষার চর্চা ও আমাদের করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্যারিসের একটি রেস্টুরেন্টের হল রুমে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা বলেন- মহান ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপট একদিনে তৈরি হয়নি, বাঙালি জাতির আত্ম অন্বেষণের ও অধিকার আদায়ের সচেনতা বহিঃপ্রকাশ এই অমর একুশ।

প্রেসক্লাব সভাপতি শাহ সুহেল আহমদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রাসেল আহমদের পরিচালনায় এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি এমএ কাশেম। বিশেষ অতিথি ছিলেন ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দিলওয়ার হোসেন কয়েস, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি চৌধুরী সালেহ আহমদ, একুশে উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক শুভ্রত ভট্টাচার্য শুভ, শাহজালাল স্পোর্টিং ক্লাবের সভাপতি ফয়ছল উদ্দিন, স্বরলীপী শিল্পী গোষ্ঠীর সভাপতি এমদাদুল হক স্বপন, ইউরোবিডি24নিউজের সম্পাদক ইমরান মাহমুদ, প্যারিস বাংলা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এনায়েত হোসেন সোহেল, ইউরো বাংলা প্রেসক্লাবের কেন্দ্রীয় সভাপতি তাইজুল ফয়েজ, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ফয়ছল আহমদ বেলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিম ওয়াদা সেলু, বাংলা অটো স্কুলের সিইও হোসেন সালাম রহমান, বাংলাদেশী কমিউনিটি ইন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমডি নূর, ইউরো বাংলা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি মোহাম্মদ আলী চৌধুরী।

সভায় আলোচনায় অংশ নেন কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব লাবু চৌধুরী, ইউরো বাংলা প্রেসক্লাবের ফ্রান্স শাখার সভাপতি তাজ উদ্দিন, প্যারিস বাংলা প্রেসক্লাবের তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাফিজুর রহমান, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ইয়াকুব আলী প্রধান প্রমুখ।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমএ কাশেম বলেন- বিভিন্নভাবে পশ্চিম পাকিস্তানের শাসকেরা বাঙালিকে দমন-পীড়ন করার চেষ্টা চালিয়েছিল। বাঙালির সচেতনতা ও প্রতিবাদী দুর্বার আন্দোলনে তারা বার বার পিছু হটতে বাধ্য হয়। একুশে ফেব্রুয়ারি মানেই তাই মাথা নত না করার এমন এক রক্তাক্ত ইতিহাস যার হাত ধরে আমরা অর্জন করেছি আমাদের স্বাধীনতা।

সভাপতির বক্তব্যে শাহ সুহেল আহমদ বলেন- প্রবাসে বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্মকে গুরুত্ব দিয়ে বাংলা ভাষা শেখাতে হবে। এজন্য অভিভাবকদের দায়িত্ব পালন করতে হবে।
তিনি বলেন- ১৯৫২ সালের একুশে ফেব্রুয়ারির চেতনায় উদ্দীপিত হয়ে বাঙালির রক্ত দিয়ে মাতৃভাষাকে মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত করেছিল। আজ তা দেশের গণ্ডি পেরিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের স্বীকৃতি লাভ করেছে। একুশে ফেব্রুয়ারি আমাদের শিখিয়েছে আত্মত্যাগের মন্ত্র, বাঙালিকে করেছে মহীয়ান।

সম্পাদক: শাহ সুহেল আহমদ
প্যারিস ফ্রান্স থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: